এলার্জিক সমস্যার সমাধান

এলার্জিক সমস্যার সমাধান

রোগ ও ঔষধ

বিভিন্ন অসুখের থেকে এলার্জিক অসুখটি একটু অন্য রকম। এ সমস্যাটি খুবই যন্ত্রনা দায়ক। তবে আমরা এ অসুখ থেকে কিভাবে আমরা মুক্তি পেতে পারি তা নিয়ে আলোচনা করবো। সাধারণত যদি আমরা নিয়মিত শরীর চর্চা করি তবে খুব সহজেই এধরনের সমস্যা থেকে আমরা মুক্তি পেতে পারি। তো শুরু করলাম এলার্জিক সমস্যার সমাধান সম্পর্কে বিস্তারিত আলোচনা।

                                            এ্যালাট্রোল – Alatrol

এ্যালাট্রোল - Alatrol
             এ্যালাট্রোল – Alatrol

উপাদান:

সেটিরিজিন হাইড্রোক্লোরাইড। ১০ মি. গ্রা. ট্যাবলেট, ৫ মি. গ্রা./৫ মি. লি. সিরাপ এবং ২.৫ মি. গ্রা./মি. লি. পেডিয়াট্রিক ড্রপস্।

নির্দেশনা:

সিজনাল এলার্জিক রাইনাইটিস, পেরিনিয়াল এলার্জিক রাইনাইটিস এবং ক্রনিক ইডিওপ্যাথিক আর্টিকেরিয়ায় নির্দেশিত। এটি এ্যালার্জেন-এর ফলে সৃষ্ট এ্যাজমাকে দূর করে।

মাত্র ও ব্যবহার বিধি:

৬ বছর বা এর বেশি বয়সের শিশুদের এবং বয়স্কদের ক্ষেত্রে: ট্যাবলেট- দৈনিক ১ টি ট্যাবলেট। সিরাপ: ২ চা চামচ প্রতিদিন ১ বার অথবা ১ চা চামচ প্রতিদিন ২ বার।

২-৬ বছরের বাচ্চাদের: সিরাপ- ১ চা চামচ প্রতিদিন। অথবা ১/২ চা চামচ প্রতিদিন ২ বার।

৬ মাস থেকে ২ বছরের নীচে বাচ্চাদের: সিরাপ- ১/২ চা চামচ প্রতিদিন। ১২-২৩ মাসের শিশুদের জন্য সর্বোচ্চ মাত্রা ১/২ চা চামচ করে প্রতি ১২ ঘন্টা অন্তর দেয়া যেতে পারে।

পডিয়াটিক্স ড্রপস্: ১ মি. লি. করে দিনে একবার। ১২-২৩ মাসের শিশুদের জন্য সর্বোচ্চ ১ মি. লি. করে প্রতি ১২ ঘন্টা অন্তর দেয়া যেতে পারে।

সতর্কতা ও যেসব ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবেনা:

গাড়ী ও ভরী মেশিন চালানোর ক্ষেত্রে সতর্কতা অবলম্বন করা উচিত। সেটিরিজিন গ্রহন এর পরে অতিরিক্ত অ্যালকোহল বা অন্যান্য সিএনএস ডিপ্রেস্টে ঔষুধ গ্রহন থেকে বিরত থাকা উচিত।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া:

সামান্য ঘুম ঘুম ভাব পরিলক্ষিত হতে পারে।

গর্ভাবস্থা ও স্তন্যদানকালে ব্যবহার:

গর্ভবতী মিহিলাদের ক্ষেত্রে অতীব প্রয়োজনীয়তা না থাকলে সেটিরিজন গ্রহন করা উচিত নয়। সেটিরিজান মায়ের দুধের সাথে নিঃসৃত হয়। তাই স্তন্যদানকারী মায়েদের ক্ষেত্রে ইহা নির্দেশিত নয়।

সরবরাহ:

এ্যলাট্রোল ট্যাবলেট : ১০*১০ টি। এ্যলাট্রোল সিরাপ : ৬০ মি. লি.। এ্যলাট্রোল পেডিয়াট্রিক ড্রপস্ : ১৫ মি. লি.।

                                          একজিনা – Eczena

একজিনা - Eczena
        একজিনা – Eczena

উপাদান:

প্রতি গ্রাম ক্রীম এবং অয়েন্টমেন্টে আছে ডাইফ্লোরাসোন ডাইএসিটেট ইউএসটি ০.৫ মি. গ্রা. ।

নির্দেশনা:

একজিনা কর্টিকোস্টেরয়েড সংবেদনশীল ডার্মাটাইটিসের প্রদাহ নিরাময়ে এবং এর দ্বারা সৃষ্ট চুলকানি উপশমে নির্দেশিত।

মাত্র এবং ব্যবহার বিধি:

রোগের ব্যাপকতার উপর নির্ভর করে আক্রান্ত স্থানে দিনে ১-৪ বার ক্রীম বা অয়েন্টমেন্টের পাতলা প্রলেপ দিতে হবে। সোরিয়াসিস এবং অপ্রতিরোধ্য প্রদাহের ক্ষেত্রে অক্লুসিভ ড্রেসিং ব্যবহার করা যেতে পারে। যদি ইনফেকশনের সৃষ্টি হয় সেক্ষেত্রে অক্লুসিভ ড্রেসিং বন্ধ করে যথার্থ এন্টি মাইক্রোবিয়াল থেরাপি দিতে হবে।

সতর্কতা ও সেভনের ক্ষেত্রে ব্যবহার করা যাবে না:

এই ঔষুধের প্রতি যেসব রোগীর অতিসংবেদনশীলতা আছে তাদের ক্ষেত্রে এটি প্রতিনির্দেশিত।

পার্শ্ব প্রতিক্রিয়া:

নিম্নোক্ত পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলো টপিক্যাল স্টেরয়েড ব্যবহারের ফলে মাঝে মাঝে দেখা দিতে পারে এবং অক্লুসিভ ড্রেসিং ব্যবহারে পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াগুলো প্রায়ই দেখা যায়। বিশেষ করে অধিকতর শক্তিশালী স্টেরয়েড ব্যবহারের প্রতিক্রিয়াগুলো নিম্নরূপ:

জ্বলুনী, চুলকানী, শস্কতা, ফলিকুলাইটিস, একনি বা ব্রণজনিত ইরাপশন, হাইপোপিগমেনটেশন, পেরিওরাল ডার্মাটাইসি, স্পর্শজনিত ত্বকের এলার্জি, চামড়ার ক্ষয়, সেসেন্ডারী ইরফেকশন এবং মিলিয়ারিয়া ইত্যাদি।

গর্ভাবস্থায় ও স্তন্যদানকালে ব্যবহার:

প্রেগনেন্সী ক্যাটাগরি – সি।

সরবরাহ:

একজিনা ০.৫% ক্রীম: ১০ গ্রাম।

একজিনা ০.০৫% অয়েন্টমেন্ট: ১০ গ্রাম।

এমন আরও তথ্য বহুল পোস্ট পেতে আমাদের সাথেই থাকুন। আর যে কোন সমস্যা আমাদের সাথে যোগাযোগ করুন। আমরা সমাধান করার চেষ্টা করবো ইনশাআল্লাহ। তো এখানেই শেষ করছি আজকের এলার্জিক সমস্যার সমাধান সম্পর্কিত আলোচনা।

সকলে ভালো থাকবেন, সুস্থ থাকবেন।

জ্বর ও সাধারন ব্যথায় করনীয়

ত্বকের ঘা হলে যা করতে হবে

2 thoughts on “এলার্জিক সমস্যার সমাধান

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *